• July 3, 2022

আধো গলায় গড়গড়িয়ে বলছে ৫৩ টি ইংরেজি ছড়া সহ প্রচুর ফল, শাকসবজির নাম

 আধো গলায় গড়গড়িয়ে বলছে ৫৩ টি ইংরেজি ছড়া সহ প্রচুর ফল, শাকসবজির নাম

আসমান ডেস্ক :বয়স মাত্র দু’বছর তিন মাস ।আর এরই মধ্যে ৫৩ টি ইংরেজি ছড়া, প্রচুর ফল, শাকসবজির নাম ও ৩০টি পশুপাখির নাম আধো গলায় গড়গড়িয়ে বলে ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে নাম তুলল বহরমপুরের ‘গুগুল বয়’ ছোট্ট অঙ্কিত দাস । এলাকায় তার পরিচয় এখন ‘গুগুল বয়’। মা, দাদু, ঠাকুমার একমাসের কসরত আর ছোট্ট অঙ্কিতের স্মরণশক্তি এখন অন্যতম চর্চিত বিষয় ইসলামপুর থানার হরহরিয়া মাঠপাড়ায় ।

emeAcademy-BBA
StartupPedia

বাবা কাজল দাস পুলিশ বিভাগে কর্মরত । বর্তমানে মালদহে রয়েছেন । এক বা দেড়মাস অন্তর বাড়ি আসেন । মা রিয়া দাস গৃহবধূ । বৃদ্ধ শ্বশুর-শাশুড়ি আর সংসার সামলে নিজের ছেলেকে তালিম দেন । ছেলের অভাবনীয় স্মৃতিশক্তির আঁচ শুরুতেই পেয়েছিলেন রিয়াদেবী ।তিনি জানান, ছড়ার বই থেকে একটা ছড়া একবার বললেই ছেলে মনে রাখতে পারে । ছেলের জন্মগত এই স্মৃতি শক্তিকে কাজে লাগায়। দু’বছর দুমাস বয়সের আধো গলায় রবীন্দ্রনাথের বাইশ লাইনের ‘হাট’ কবিতা আত্মস্ত করে ফেলে অঙ্কিত । রিয়াদেবী আরও জানান, ‘হাট’ কবিতা দিয়েই ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে আবেদন । পরে কর্তৃপক্ষের দাবি মতো ছড়া, ফল, শাকসবজি, পশুপাখির নাম শিখিয়ে ছেলেকে উপযুক্ত করে তোলেন তিনি । যদিও ছেলের কৃতিত্বের পিছনে দাদু-ঠাকুমার অবদানও স্বীকার করে নিয়েছেন তিনি ।

emeAcademy-BHM

ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডে নাম অঙ্কিতের
২০২২ সালের ১৮ এপ্রিল ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে আবেদন পাঠান রিয়া দাস । ২ মে ফোনে জানানো হয় অঙ্কিত দাস ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসের জন্য মনোনিত হয়েছে ।ছোট্ট অঙ্কিতের ভারত জয়ের সাফল্যের খবর নিমেষে ছড়িয়ে পড়ে এলাকায় ।এরপর জুন মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে বাড়িতে এসে পৌঁছয় সাফল্যের স্বীকৃতি । মেডেল, সংশাপত্র ও নানাবিধ উপহার পেয়ে আপ্লুত রিয়া দাস সহ পরিবারের সকলেই।

Hospitech

editor

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Related post

Shares