• February 5, 2023

কর্মজীবন থেকে অবসর নিয়ে আবারও খেলাধুলার জগতে ৮৩-র বৃদ্ধ

 কর্মজীবন থেকে অবসর নিয়ে আবারও খেলাধুলার জগতে ৮৩-র বৃদ্ধ

আসমান ডেস্ক : বয়স কেবল মাত্র একটা সংখ্যা মাত্র। আবারও প্রমানিত হল এই প্রবাদ বাক্য। চুঁচুড়া শিবতলার প্রবীণ নাগরিক অশোক পাইন। বয়স ৮০ ছাড়িয়েছে কবেই। বর্তমান বয়স ৮৩।আশির কোটা পেরোলেও তাঁর খেলাধুলার প্রতি টান রয়েই গিয়েছে শৈশবের মতোই। যে বয়সে লোকে বার্ধক্যে জর্জরিত হয়ে গৃহবন্দি হয়ে যান, সেই বয়সে এই প্রবীণ ব্যক্তি জাতীয় স্তরে টেবিল টেনিস টুর্নামেন্টে অংশগ্রহন করতে সম্প্রতি কাশ্মীর যাচ্ছেন।

emeAcademy-BBA

পেশায় চ্যাটার্ড একাউন্টেন্ট অশোক পাইন একটা সময় চাকরি করতেন ফিলিপস ইন্ডিয়া লিমিটেডের বাল্ব ডিভিশনে । সেখানে একাউন্ট সেকশনে এসিস্টেন্ট এডমিনিষ্ট্রেটর অফিসার পদে। দীর্ঘ ৩৮ বছর চুটিয়ে কাজ করার পর কাজ থেকে অবসর নিয়ে ফিরে এসেছেন যৌবনের সেই প্রিয় স্পোর্টস টেবিল টেনিসে।ঘর ভর্তি মেডেল আর কাপ। আসলে শুরুটা হয়েছিল সেই স্কুল ফাইনাল পরীক্ষা দেওয়ার পর অবসরকালীন ছুটিতে।

emeAcademy-BHM
StartupPedia

অশোক বাবু জানান,’আমার বাবা করুণাময় পাইন ছিলেন চুঁচুড়ার বিখ্যাত ডিউক ক্লাবের সচিব। তখনকার দিনের ফার্স্ট ক্লাস ম্যাজিস্ট্রেট ছিলেন বাবা। স্কুল ফাইনাল দেওয়ার পর তাঁরই অনুপ্রেরণায় আমি ডিউক ক্লাবে টেবিল টেনিসে ভর্তি হই। যতদিন না চাকরি পেয়েছি ততদিন চুটিয়ে টিটি খেলেছি। শুধু খেলেছি বললে ভুল হবে। দেশের বিভিন্ন জায়গায় গিয়ে প্রচুর প্রাইজ নিয়ে এসেছি। ‘এরপর দীর্ঘদিনের কর্মজীবন শেষ করে বর্তমানে আবারও খেলাকে সঙ্গী করেছেন তিনি। প্রতিদিন সন্ধ্যায় নিয়ম করে ঘন্টা দুয়েক ডিউক ক্লাবে টেবিল টেনিস খেলেন তিনি।

emeAcademy-MBA

প্রতি বছর দেশের বিভিন্ন প্রান্তে এই টুর্নামেন্ট হয়। অশোক বাবু জানান, ‘প্রথম থেকেই এই টুর্নামেন্টে অংশগ্রহন করি আমি। শুধু করোনার জন্য একবছর বাদ গেছে। আমি প্রতিবারই ফার্স্ট নয় সেকেন্ড হই। একবার গোল্ড মেডেল ও পেয়েছিলাম। সিঙ্গলস, ডাবলস, মিক্স ডাবলস , টিম ইভেন্ট , বিভিন্ন পর্যায়ে এই টুর্নামেন্ট হয়। আর এবার এই টুর্নামেন্ট হচ্ছে আগস্ট মাসে শ্রীনগরে।’আর সেই টুর্নামেন্ট খেলার জন্য এই বয়সেও কঠোর প্র্যাকটিস চালিয়ে যাচ্ছেন অশোক বাবু।

Hospitech

editor

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Shares